মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার জন্য কত পয়েন্ট লাগবে এছাড়াও আরো কিছু প্রশ্ন ও উত্তর

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার জন্যে কত পয়েন্ট লাগবে এ নিয়ে বলেছেন মোঃ নোমান ইসলাম নিরব
মোঃ নোমান ইসলাম নিরব

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে যেসব প্রশ্ন বারবার করা হয়

Table of Contents

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে যেসব প্রশ্ন করা হয়ে থাকে সেসব প্রশ্ন ও তার উত্তর নিয়ে আজকের এ ব্লগে আপনাদের স্বাগতম। মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার জন্যে কত পয়েন্ট লাগবে? মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার মোট কত পয়েন্ট লাগবে? মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় চান্স পাওয়ার উপায় কি? ঢাকা মেডিকেলে চান্স পাওয়ার উপায় কি? সেকেন্ড টাইম মেডিকেল ভর্তির ক্ষেত্রে কত মার্কস কাটা হয়? ইত্যাদি সকল প্রশ্নের উত্তর দিবেন মোঃ নোমান ইসলাম, তিনি রংপুর মেডিকেল কলেজের পঞ্চম বর্ষের একজন ছাত্র। চলুন জেনে নেই।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার জন্য মোট কত পয়েন্ট লাগবে?

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২১-২২ এর জন্যে সর্বমোট অর্থাৎ এইচএসসি ও এসএসসি মিলে সর্বনিম্ন ৯.০০ লাগবে। এর নিচে হলে আবেদন করা যাবেনা। বিশেষ ক্ষেত্রে যেমন সকল উপজাতিয় এবং পার্বত্য জেলার অউপজাতীয়দের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ৮.০০ থাকতে হবে, এর নিচে আবেদন গ্রহণ যোগ্য নয়।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় বায়োলজি তে কত পয়েন্ট থাকতে হবে?

বায়োলজি তে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পয়েন্ট থাকতে হবে, একই নিয়ম উপজাতীয়দের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য, উপজাতিয় এবং পার্বত্য জেলার অউপজাতীয়দের ক্ষেত্রে বায়োলজিতে সর্বনিম্ন ৩.৫০ থাকতে হবে, এর নিচে আবেদন গ্রহণ যোগ্য নয়।

বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্যে কি আলাদা কোন নিয়ম আছে?

বাংলাদেশে অবস্থানরত ও দেশে অবস্থানরত সবার জন্যে একই নিয়ম প্রযোজ্য।

সেকেন্ড টাইম মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ক্ষেত্রে কত পয়েন্ট লাগবে?

সেকেন্ড টাইম মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ক্ষেত্রেও সর্বনিম্ন জিপিএ ৯.০০ থাকতে হবে, পার্বত্য জেলার উপজাতিয় ও অউপজাতিদের ক্ষেত্র ৮.০০ পয়েন্ট লাগবে।

সেকেন্ড টাইম মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় কয় মার্কস কাটা হয়?

সেকেন্ড টাইম মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় ৫ মার্কস কাটা হয়। তবে কেউ যদি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় চান্স পেয়ে কোন সরকারি মেডিকেলে ভর্তি থেকে আবার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে তার ক্ষেত্রে ৭.৫ পয়েন্ট কাটা হবে।

সর্বমোট কত নম্বরে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা হয়?

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা হয় ১০০ নম্বরে হয়, তবে এইচএসসি ও এসএসসি এর জিপিএ থেকে ২০০ মার্কস নেওয়া হয়। অর্থাৎ সসর্বমোট ৩০০ নম্বরে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় জিপিএ থেকে কিভাবে পয়েন্ট হিসাব করা হয়?

জিপিএ হিসাবঃ
আপনার এইচএসসি জিপিএ পয়েন্ট কে ২৫ দিয়ে গুন করুন এবং এসএসসি পয়েন্ট কে ১৫ দিয়ে গুন করুন। তারপর দুই গুনফল যোগ করলেই আপনার পয়েন্ট থেকে স্কোর জানতে পারবেন।
উদাহরণ ঃ একজন এসএসসি তে জিপিএ ৫.০০ ও এইচএসসি তে জিপিএ ৫.০০ পায় তাহলে তার স্কোর কত হবে?
চলুন হিসেব করে ফেলি-
এসএসসি জিপিএর ক্ষেত্রে- ৫*১৫=৭৫
এইচএসসির ক্ষেত্রে –
৫*২৫ = ১২৫

উভয় ক্ষেত্রে যোগ করে(৭৫+১২৫=২০০) মোট ২০০ নম্বর হয়। অর্থাৎ জিপিএ থেকে সর্বোচ্চ ২০০ নম্বর পেতে পারো।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সর্বোচ্চ নম্বর কত?

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সর্বোচ্চ নম্বর জানতে পড়ুন – মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সর্বোচ্চ নম্বর ও সর্বনিম্ন নম্বর বিগত বছরগুলোর

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সর্বনিম্ন নম্বর কত?

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সর্বনিম্ন নম্বর জানতে পড়ুন – মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সর্বোচ্চ নম্বর ও সর্বনিম্ন নম্বর বিগত বছরগুলোর

ঢাকা মেডিকেল চান্স পাওয়ার উপায় কি?

ঢাকা মেডিকেলে চান্স পাওয়ার উপায় বা সরকারি মেডিকেলে চান্স পাওয়ার উপায় জানতে পড়ুন – সরকারি মেডিকেলে চান্স পাওয়ার উপায় – মেডিকেলে চান্স পাওয়ার গল্প

মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ কেমন হয়?

সরকারি মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ জানতে পড়ুন – সরকারি মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ এবং বেসরকারি মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ জানতে পড়ুন – প্রাইভেট মেডিকেল নিয়ে যেসব প্রশ্ন কমনলি করা হয় এবং খরচ সহ বিস্তারিত জেনে নিন

কম জিপিএ নিয়ে মেডিকেল চান্স পাওয়া যায় কি?

হ্যাঁ যায়, তবে খুব কম, কম জিপিএ যাদের তাদের জন্যে লেখা ব্লগটি পড়ে নিন – কম জিপিএ নিয়ে মেডিকেল চান্স পাওয়ার জন্যে যা করতে হবে এবং যারা কম জিপিএ নিয়ে মেডিকেলে চান্স পেয়েছেন

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২১-২০২২ কবে হবে?

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২১-২২ অনুষ্ঠিত হবে আগামি ১ এপ্রিল ২০২২ ইং তারিখে।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার সার্কুলার ২০২১-২২ কখন পাব্লিশ হবে?

এখনো মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ২০২১-২২ সার্কুলার অফিসিয়ালি পাব্লিশ হয়নি, মন্ত্রিসভায় আলোচনা করা হয়েছে, কিছুদিনের মদ্ধে বিজ্ঞপ্তি চলে আসবে ইনশাআল্লাহ। সার্কুলার দেখুন – এখানে

মেডিকেলে চান্স পেতে কত পয়েন্ট লাগবে?

মেডিকেলে চান্স পেতে কত পয়েন্ট লাগবে তা ঠিক ভাবে বলা মুশকিল, তবে আবেদন করার জন্যে মিনিমাম জিপিএ ৯.০০ পয়েন্ট থাকলেই হবে। তবে জিপিএ ১০.০০ পয়েন্ট না থাকলে চান্স পাওয়া কঠিন হয়ে যায়। জিপিএ থেকে ২০০ নম্বর এবং ১০০ নম্বরে লিখিত পরীক্ষা, মোট ৩০০ নম্বরের মধ্যে ফলাফল তৈরি করা হবে। গড়ে ২৭০ নম্বর পেলে আশাকরি চান্স পাওয়া যাবে। তবে একেক বছর সর্বনিম্ন নম্বর / কাট মার্ক্স একেক রকম হয়। ঢাকা মেডিকেলে চান্স পাওয়ার জন্যে ২৮৫-২৯৫ স্কোর এর মদ্ধে থাকলে / সর্বোচ্চ নম্বর পেলে আশা করা যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজে চান্স পাওয়া যাবে।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় মার্ক ডিস্ট্রিবিউশন কিভাবে করা হয়?

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় মার্ক ডিস্ট্রিবিউশন বা মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন ২০২২ নিম্নে দেওয়া হল-

বিষয়প্রশ্ন সংখ্যানাম্বার
জীব বিজ্ঞান৩০৩০
রসায়ন বিজ্ঞান২৫২৫
পদার্থ বিজ্ঞান২০২০
ইংলিশ১৫১৫
সাধারণ জ্ঞান১০১০
সর্বমোট১০০১০০
মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন ২০২২

Leave a Comment